কোন বিশেষ ডায়েট মেনে স্লিম অ্যান্ড ট্রিম হয়ে নতুন রূপে ধরা দিলেন অভিনেত্রী স্মৃতি!

একবিংশ শতকের গোড়ায় টেলিভিশনে ‘কিঁউ কি সাস ভি কভি বহু থি’ সকলের নজর কেড়েছিল। অনেক শাশুড়ীই তুলসীর মতো গৃহবধূ চাইতেন। ফলে স্মৃতি ইরানি (Smriti Irani) তখন তুলসী নামেই রাতারাতি বিখ্যাত। সিরিয়ালটি বহুদিন চলেছিল। তুলসীর জীবনের উত্থান-পতন পেরিয়ে হঠাৎই স্মৃতি বিজেপিতে যোগদান করলেন। ভোটে জিতে হলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। কিন্তু অস্বাভাবিক ভাবে বেড়ে গিয়েছিল তাঁর ওজন। তুলসীর চরিত্রে অভিনয়ের সময় থেকেই তাঁকে ওজন বাড়াতে হয়েছিল। কিন্তু সেই ওজন এবার কমিয়ে স্লিম অ্যান্ড ট্রিম হয়ে নতুন রূপে ধরা দিলেন স্মৃতি।

নিজেই ইন্সটাগ্রামে নিজের নতুন ছবি শেয়ার করেছেন স্মৃতি। তাঁর ছবি দেখে একদা ‘কিঁউ কি সাস ভি কভি বহু থি’-র প্রযোজক একতা কাপুর (Ekta kapoor) মজা করে বলেছেন, তাঁর হিংসা হচ্ছে। তিনি ডায়েট বন্ধ করতে বলেছেন স্মৃতিকে। অপরদিকে নেটিজেনদের একাংশের প্রশ্ন, কোন ডায়েট অনুসরণ করে আবারও শেপে ফিরে এলেন স্মৃতি! স্মৃতি নিজের মুখে কিছু না বললেও ঘনিষ্ঠ সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, তিনি গত পঁয়তাল্লিশ দিন ধরে গ্লুটেন ফ্রি খাবার খাচ্ছেন এবং বর্জন করেছেন দুগ্ধজাত খাবার। ইদানিং অনেকেই এই ধরনের ডায়েট মেনে চলছেন। কারণ গ্লুটেনের কোনোরকম পুষ্টিগুণ নেই। তাছাড়া অনেক সময় গ্লুটেন থেকে অ্যালার্জি হয়।

এই বিশেষ ধরনের ডায়েটের ক্ষেত্রে সাধারণ ঘরোয়া খাবার খাওয়া যায়। ডায়েটে প্রাধান্য পায় শস্য, বাদাম, দানা জাতীয় খাবার। দুগ্ধজাত খাবার ও গ্লুটেন ডায়েট থেকে বাদ দেওয়ার ফলে শরীরে হজমশক্তির উন্নতি ঘটে। হরমোনের মাত্রাও ব্যালেন্স থাকে। তবে সকলের ক্ষেত্রে ভিন্ন ফলাফল ঘটে।

কিন্তু এবার অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, ওজন কমিয়ে আবারও হয়তো অভিনয়ে কামব‍্যাক করবেন স্মৃতি। তবে প্রথমদিকে স্মৃতি যখন অভিনয় করতেন, তখন তাঁর কাঁধে রাজনৈতিক দায়িত্ব ছিল না। কিন্তু বর্তমানে রাজনৈতিক দিকে তিনি অনেকটাই সক্রিয়। ফলে রাজনৈতিক দায়িত্ব সামলে তিনি আদৌ অভিনয় করতে পারবেন কিনা, তা নিয়েই রয়েছে প্রশ্ন।