‘ডিস্কো কিং’ বাপ্পী লাহিড়ীর কম্পোজ করা গান গাইলেন স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক, পেলেন তুমুল প্রশংসা

জি টিভির বিখ্যাত সিঙ্গিং রিয়েলিটি শো ‘সারেগামাপা’-র মঞ্চে প্রথম থেকেই নজর কেড়েছেন স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক (Snigdhajit Bhowmik)। বাংলার ভূমিপুত্র স্নিগ্ধজিৎ এর আগে জি বাংলার মঞ্চে সুরের মূর্চ্ছনায় সকলের মন জয় করেছিলেন। তবে ‘সারেগামাপা’-র সর্বভারতীয় মঞ্চে আসার জন্য তাঁকেও রীতিমত অডিশন রাউন্ড পেরোতে হয়েছে। ইতিমধ্যেই তাঁর ঝুলিতে এসেছে সারেগামাপা-র বিচারক বিশাল দাদলানি (Vishal Dadlani)-র তরফে প্লে-ব‍্যাকের সুযোগ। বাংলাদেশেও তৈরি হয়েছে স্নিগ্ধজিৎ-এর ফ্যান ফলোয়িং।

মাথায় রকমারি ব্যান্দানা, চোখে ওভারসাইজড সানগ্লাস, ‘বিয়ার্ড ম্যান’ স্নিগ্ধজিৎ-এর রকস্টার লুকের সঙ্গে তাঁর রকিং পারফরম্যান্স অনবদ্য। তিনি ‘ইয়াদ আ রহা হ্যায়’ গাওয়ার পর ঝড়ের গতিতে তা ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। স্নিগ্ধজিৎ-এর সঙ্গীত প্রতিভাকে কুর্নিশ জানালেন ‘ডিস্কো কিং’ বাপ্পী লাহিড়ী (Bappi Lahiri)। সম্প্রতি সারেগামাপা-র মঞ্চে বিশেষ অতিথি হয়ে এসেছিলেন তিনি। তাঁর সামনে বাপ্পীদার কম্পোজ করা ‘শরাবি’ ফিল্মের বিখ্যাত গান ‘দে দে পেয়ার দে’ এবং ‘লহু কে দো রঙ’ ফিল্মের ‘চাহিয়ে থোড়া পেয়ার’ গানদুটি গেয়েছেন স্নিগ্ধজিৎ।

গান গেয়ে এদিন জুরিদের তরফে একশো শতাংশ ভোট ও বিচারকদের স্ট্যান্ডিং ওভেশন পেলেন স্নিগ্ধজিৎ। বাপ্পী তো বলেই ফেললেন স্নিগ্ধজিৎ ধারাল করেছেন। এছাড়াও ‘ডিস্কো কিং’-কে নিজের পোস্টে ট‍্যাগ করে নিজের গাওয়া গান উৎসর্গ করেছেন স্নিগ্ধজিৎ। বহু লড়াই, বহু প্রচেষ্টার পর এই স্থান অর্জন করেছেন গ্রামের ছেলে স্নিগ্ধজিৎ। নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে তিনি। বরাবর গায়ক হতে চেয়েছিলেন। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও নিজের স্বপ্ন সফলের পথে এগিয়ে চলেছেন স্নিগ্ধজিৎ।

যদি কোনো অঘটন না ঘটে, কোনো রাজনীতি না হয়, তাহলে হয়তো এবার বাংলার মাথাতেই উঠতে চলেছে ‘সারেগামাপা’-র সেরার শিরোপা। তবে তা কার মাথায় উঠবে তা এখনও বলা যাচ্ছে না। কারণ বাংলা ব্রিগেড-এর প্রত্যেক প্রতিযোগী অপ্রতিরোধ‍্য।